মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

ঐতিহ্য ও ভাষা

অত্রউপজেলারভূ-প্রকৃতি ও ভৌগলিক অবস্থান এই উপজেলার মানুষেরভাষা ও সংস্কৃতি গঠনে ভূমিকা রেখেছে।বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্ব অঞ্চলে অবস্থিত এই উপজেলাকে ঘিরে রয়েছে ভারতের ত্রিপুরারাজ্য ও কুমিল্লাজেলার  অন্যান্য উপজেলাসমূহ। এখানে ভাষার মূল বৈশিষ্ট্য বাংলাদেশের অন্যান্য উপজেলার মতই, তবু ও কিছুটা বৈচিত্র্য খুঁজেপাওয়াযায়।যেমনকথ্যভাষায়মহাপ্রাণধ্বনিঅনেকাংশেঅনুপস্থিত, অর্থাৎভাষাসহজীকরণেরপ্রবণতারয়েছে।এউপজেলারআঞ্চলিকভাষারসাথেসন্নিহিত  নোয়াখালী অঞ্চলেরভাষারঅনেকটাসাযুজ্যরয়েছে।ডাকাতিয়ানদীরগতিপ্রকৃতিএবংলালমাইপাহাড়েরপাদদেশেসদরদক্ষিন উপজেলার  মানুষেরআচার-আচরণ, খাদ্যাভ্যাস, ভাষা, সংস্কৃতিতেব্যাপকপ্রভাবফেলেছেবলেবিশেষজ্ঞরামনেকরেন।

এইএলাকারইতিহাসপর্যালোচনায়দেখাযায়যেএর  সভ্যতাবহুপ্রাচীন।এইএলাকায়প্রাপ্তপ্রত্নতাত্ত্বিকনিদর্শনপ্রাচীনসভ্যতারবাহকহিসেবেদেদীপ্যমান।সাংস্কৃতিকপরিমন্ডলেসদরদক্ষিনের  অবদানওঅনস্বীকার্য।ভাষা সৈনিকজনাব আলী তাহের মজুমদার এরপদচারনায় আজো গর্ব বোধ করে এই জনপদের মা্নুষ।

এই এলাকার ইতিহাস পর্যালোচনায় দেখা যায় যে কুমিল্লার সভ্যতা বহু প্রাচীন।এই এলাকায় প্রাপ্ত প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন ও বৌদ্ধ বিহারের ধ্বংসাবশেষপ্রাচীন সভ্যতার বাহক হিসেবে দেদীপ্যমান। এছাড়াও এ এলাকায় কিছু ক্ষুদ্রজাতিসত্বা বসবাস করে যাদের নিজস্ব ভাষা ও সংস্কৃতি রয়েছে। সাংস্কৃতিকপরিমন্ডলে কুমিল্লার অবদানও অনস্বীকার্য। সুরসম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খান, ওস্তাদ আয়েত আলী খান, ওস্তাদ আকবর আলী খান প্রমুখ ভুবন বিখ্যাত সংগীতজ্ঞস্মৃতি বিজড়িত কুমিল্লা। কুমিল্লার ওস্তাদ আফতাবউদ্দিন খান সরোদের মত দেখতেসুর সংগ্রহ যন্ত্র উদ্ভাবন করেন। এছাড়াও তিনি মেঘ ডাবুর যন্ত্র নামেসুরযন্ত্রের স্রষ্টা। ওস্তাদ আলাউদ্দিন খান চন্দ্র সারং এবং ওস্তাদ আয়েতআলি খান আধুনিক সরোদ উদ্ভাবন করেন। কুমিল্লার বাঁশের বাঁশি সমগ্র উপমহাদেশেপ্রসিদ্ধ।ডঃ আখতার হামিদ খান এ এলাকার জনগনের ভাগ্য উন্নয়নের পথিকৃত।